একসাথে একই সময়ে দুইটি অপারেটিং সিস্টেম চালান আপনার পিসিতে – ভার্চুয়াল মেশিন টিউটোরিয়াল

Posted: January 1, 2011 in Software, Windows

একসাথে একই সময়ে দুইটি অপারেটিং সিস্টেম চালান আপনার পিসিতে – ভার্চুয়াল মেশিন টিউটোরিয়াল

ডুয়েল বুটিংভার্চুয়াল মেশিন এর সাথে আমাদের প্রায় সবারই পরিচয় আছে। একই পিসিতে দুই ড্রাইভে দুই অপারেটিং সিস্টেম,কম্পিউটার চালুর সময় ঠিক করে দিতে হয় কোনটি দিয়ে কোনটি দিয়ে পিসি রান করাবেন আপনি। কিন্তু এতেও অনেকে সন্তুষ্ট থাকতে পারেন না। কেননা আপনি হয়তো উইন্ডোজ সেভেন বা ভিসতা ব্যবহার করেন কিন্তু প্রোগ্রাম কম্পাটিবিলিটির কথা চিন্তা করে এক্সপিও রেখেছেন কম্পিউটারে,কিন্তু এক্সপি চালালে ইন্টারনেট নেই কিংবা এক্সপিতে নেই লেটেস্ট ড্রাইভার আপডেট যা কিনা সেভেনে পেতেন। মানে একটি অভাব পূরণ হলে আরেকটি অভাব তৈরি হয়ে যাচ্ছে নিজে থেকেই। লিনাক্স ডুয়েল বুটিং-এর ক্ষেত্রেও একই অবস্থা। অনেকে একসাথে ৩টি অপারেটিং সিস্টেমও ব্যবহার করেন সে প্রসংগে আর যাচ্ছি না।

এ ধরনের সমস্যায় আপনি একটা কথাই ভাবেন-ইশ!যদি দুইটা অপারেটিং সিস্টেমই একই সময়ে একই পিসিতে চালানো যেত! অনেক ভাল হতো! হ্যা পাঠক আপনার সেই স্বপ্ন কিন্তু এখন আর স্বপ্ন না। ঠিক এখন হবে না শব্দটা,আসলে অনেক আগে থেকেই এটি করা সম্ভব। কিন্তু অজ্ঞতার জন্য আমরা এই অতি সহজ কাজটা করতে পারিনি আজো। আজ আপনাদের সেই অজ্ঞতার অভিশাপ থেকে মুক্তি দিতে একসাথে দুই অপারেটিং সিস্টেম  চালানোর নাড়ী-নক্ষত্র জানিয়ে দিব।

শুনতে কি একটু অস্বাভাবিক ঠেকছে? কেন বলুন তো? অপারেটিং সিস্টেম আসলে কি? একটা সফটওয়ার বা প্রোগ্রাম তাই না? তাহলে একটা অপারেটিং সিস্টেমের ভেতরতো আরেকটা চালানোই যেতে পারে। খুব সহজ তাই না? সহজ কিংবা কঠিন বলতে পারব না,শুধু এটাই বলব দুইটা সিস্টেম একসাথে চালাবার সহজতম উপায়টাই এবার আপনাদের শেখাব আমি। অভিজ্ঞরা এতোক্ষণে নিশ্চয়ই ধরে ফেলেছেন আমি কিসের কথা বলছি,হ্যা পাঠক-ভার্চুয়াল মেশিনের কথাই বলা হচ্ছে। সোজা বাংলায় একটাকে প্রধান অপারেটিং সিস্টেম ধরে সেটার ভেতর এপ্লিকেশন হিসেবে আরেকটা অপারেটিং সিস্টেম গেস্ট হিসেবে চালানোটাই ভার্চুয়াল মেশিনের মূল মন্ত্র।

আর নিঃসন্দেহে পিসিতে ভার্চুয়াল মেশিন চালাবার জন্য ভিএমওয়ার প্লেয়ার হচ্ছে সবচেয়ে সহজ এবং অন্যতম কার্যকর পন্থা। উইন্ডোজের যেকোন ভার্সন,লিনাক্স কিংবা ক্রোম- ভিএমওয়ার প্লেয়ার-এর কম্পাটিবিলিটি নিয়ে ভাবতে হবে না আপনাকে। ২০০টির মতো অপারেটিং সাপোর্ট করে এই ভিএমওয়ার প্লেয়ার। আর উইন্ডোজ সেভেনের এক্সপি মোডের চেয়েও এখানে আপনি অনেক ভালভাবে কাজ করতে পারবেন নিঃসন্দেহে এই কথা বলা যায়। এখন কথা না বাড়িয়ে কাজ শুরু করে দেই। আমি উইন্ডোজ সেভেনে কিভাবে উইন্ডোজ এক্সপি গেস্ট হিসেবে ইন্সটল করবেন তার উপায় বলব এখানে। অন্য যেকোন অপারেটিং সিস্টেমের ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য। আশা করি বুঝতে কোন সমস্যা হবে না।

>> প্রথমেই দেখতে হবে আপনার পিসি ভার্চুয়াল পিসি রান করানোর যোগ্যতা রাখে কিনা। আমি মূলত পিসির কনফিগারেশনের কথা বলছি। কিভাবে বুঝবেন? ধরছি আপনার মূল অপারেটিং সিস্টেম উইন্ডোজ ৭,আর আপনি চাচ্ছেন গেস্ট হিসেবে এক্সপি ইন্সটল করতে। এখন উইন্ডোজ এক্সপির আর সেভেন আলাদা আলাদা কনফিগারেশন যোগ করুন। বিশেষত RAM,২ গিগাবাইট RAM ছাড়া ভার্চুয়াল মেশিনের আশা করবেন না। কেননা এই সিস্টেমে পুরো প্রেশারটাই যাবে RAM-এর উপর দিয়ে। আর প্রসেসরও ন্যূনতম কোর ২ ডুয়ো হওয়া উচিত। আর ভিএমওয়ার প্লেয়ার আপনার সি ড্রাইভে আলাদা ১৫০ মেগাবাইট স্পেস নিবে।

>> প্রথমেই ভিএমওয়ার প্লেয়ারটি ডাউনলোড করে নিন।এর সর্বশেষ ভার্সন হচ্ছে ৩.০.০ আর সাইজ ৯০ মেগাবাইটের মতো।ডাউনলোড এড্রেস আর সাথে বিস্তারিত তথ্যের জন্য এই ঠিকানা থেকে ঘুরে আসুন এর অফিশিয়াল সাইটটিথেকে।

>> ইন্সটলার ফাইলটি রান করান। ইন্সটলেশন ঠিকভাবে শুরু হলে এমন উইন্ডো দেখবেন।ভার্চুয়াল মেশিন

>> এরপর নেক্সেটে গিয়ে কোথায় ইন্সটল করবেন তা দেখিয়ে দিন। নেক্সেটে গেলে ইন্সটলেশন শুরু হবে। অপেক্ষা করুন।

>> সফলভাবে ইন্সটলেশন শেষ হলে ভিএমওয়ার প্লেয়ার রিস্টার্ট চাইবে। পিসি রিস্টার্ট করুন।

>> রিস্টার্ট হবার ডেস্কটপেই ভিএমওয়ার প্লেয়ার-এর আইকনটি দেখতে পাবেন। এতে ক্লিক করে প্লেয়ারটি চালু করুন।

>> লাইসেন্স এগ্রিমেন্ট ইয়েস করুন।

>> এবারে ভিএমওয়ার প্লেয়ার-এর হোমপেজ দেখতে পাবেন। বামে রয়েছে ইন্সটল করা ভার্চুয়াল মেশিনের লিস্ট(যা এই মুহুর্তে ফাঁকা) আর ডানে বিভিন্ন অপশন। আর উপরেও মেনুবারে যাবতীয় অপশন ও হেল্প ফাইল আপনি পাবেন।ভার্চুয়াল মেশিন

>> আমরা এখন নতুন ভার্চুয়াল মেশিন তৈরি করব। এর আগে হার্ডড্রাইভের একটি ড্রাইভ পুরো ফাঁকা করে এনটিএফএস ফরম্যাটে নিয়ে নিন। সেটাই সবচেয়ে সুবিধাজনক ও নিরাপদ হবে। Create a New Virtual Machine-এ ক্লিক করুন।

>> এবারে ইন্সটলার ফাইলটি দেখিয়ে দিন।আপনি চাইলে অপারেটিং সিস্টেমের সিডি/বা ডিভিডি ড্রাইভে ঢুকিয়ে সেখান থেকে অথবা সরাসরি অপারেটিং সিস্টেমের আইএসও ফাইল দেখিয়ে সেখান থেকেও নতুন গেস্ট অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করে নিতে পারবেন।পদ্ধতি নির্বাচন করে নেক্সটে যান।এই অবস্থাতেই ভিএমওয়ার প্লেয়ার আপনার গেস্ট অপারেটিং সিস্টেমের ফাইলটি ডিটেক্ট করে নাম নাম দেখাবে। ভার্চুয়াল মেশিন

>> উইন্ডোজের সিডি কী,উইজারনেম ও পাসওয়ার্ড প্রবেশ করান।

>> এবারে ভার্চুয়াল মেশিন(অপারেটিং সিস্টেম)-এর নাম ও তা কোথায় ইন্সটল করবেন তা দেখিয়ে দিন।

>> ভিএমওয়ার প্লেয়ার জানতে চাইবে ভার্চুয়াল মেশিনের জন্য আপনি সর্বোচ্চ কতটুকু হার্ডডিস্ক স্পেস দিবেন সেটা।কাজের ব্যপ্তী এবং আপনার হার্ডডিস্কের অবস্থা বুঝে এটি ঠিক করুন।উইন্ডোজ এক্সপি গেস্ট হলে ৫ গিগাবাইট যেমন যথেষ্ঠ আবার ভিসতার জন্য কিন্তু ১৫ গিগাবাইট লাগবে।আবার আপনি যদি গেস্ট সিস্টেমে বড় কোন প্রোগ্রাম চালাতে চান সেটির স্পেস-এর কথাও মাথায় রাখুন। ছবি-৭৭ভার্চুয়াল মেশিন

>> এবারে ফাইনাল স্টেজ।আপনার ভার্চুয়াল মেশিনের যাবতীয় তথ্য এখন দেখতে পাবেন। আর এতে কিকি ডিভাইস থাকছে তাও দেখতে পাবেন। সাধারনত ডিফল্টভাবে সাউন্ট,ল্যান,সিডি/ডিভিডি ড্রাইভ সবই এখানে অন্তর্ভুক্ত হবে।

>> এখানে Customize Hardware-এ ক্লিক করুন।প্রথমেই দেখবেন RAM। এখানে ভিএমওয়ার প্লেয়ারই আপনাকে গেস্ট-এর মিনিমাম ডিমান্ড,রিকমান্ডেড ডিমান্ড এম্বং আপনার সিস্টেমের টোটাল RAM-এর পরিমান জানাবে। বামে হার্ডওয়ার লিস্টে ক্লিক করে প্রতিটির সেটিং এবং তা প্রতিবারই ভার্চুয়াল মেশিনের সাথে চালু হবে কিনা বা কিভাবে কাজ করবে তা ঠিক করে দিন।মনে রাখবেন ভার্চুয়াল মেশিনে সাচ্ছন্দের সাথে কাজ করার জন্য আপনার পিসির হার্ডওয়ার বুঝে এইসব অপশন ঠিক করাটা খুবই জরুরি।কাজ শেষ করে Finish-এ ক্লিক করুন।ভার্চুয়াল মেশিন

>> ভিএমওয়ার প্লেয়ার-এর মেইন মেনুতে ফিরে আসবেন এখন আপনি। Play virtual machine-এ ক্লিক করুন।

>> উইন্ডোজ এক্সপি ইন্সটলেশন শুরু হবে। শুধু মাথায় রাখুন সাধারনভাবে যেভাবে যতক্ষন ধরে এক্সপি ইন্সটল হয় এখানেও ভিএমওয়ার প্লেয়ার-এর ভেতর এখন ঠিক তাই হবে। সুতরাং ধৈর্য্য করে কাজ করে যান। ফরম্যাট,কপি,লোডিং,সেটআপ সবই দেখতে পাবেন।

>> কাজ হলে আপনি চাইলে ভিএমওয়ার প্লেয়ার দিয়ে অথবা যেখানে গেস্ট অপারেটিং সিস্টেম ইন্সটল করেছেন সেখানে গিয়েও ভার্চুয়াল মেশিন রান করাতে পারেন। ব্যস আর কি!এবার একসাথে উপভোগ করুন দুইটি অপারেটিং সিস্টেম

Comments
  1. Aslam says:

    আমি ২ ড্রাইভে ২টি উইন্ডোজ ব্যাবহার করতে চাই। ১টিতে ৭ এবং অন্যটিতে এক্সপি। তাহলে কিভাবে করব? দয়া করে যদি বলতেন তবে খুবই উপকৃত হতাম। ধন্যবাদ। (বলে রাখি- আমি এর আগে চেষ্টা করেছি, কিন্তু উইন্ডোজ ৭ সেটআপ দিলে অন করার সময় দুটি বুট লিংক আসে না। কিভাবে করব?)

    • jakuan says:

      আপনি যে ২ টা ড্রাইভে উইন্ডোজ দিতে চান সে ড্রাইভ গুলি খালি রাখুন

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s